অনলাইনে শাড়ি কিনবেন কোথা থেকে ?


বাংলাদেশে যে কোন উৎসবে বাঙালি নারীর প্রথম পছন্দ হচ্ছে শাড়ি। কিন্তু নারীরা নানা কাজে ব্যস্ত থাকায় মার্কেট এ যাওয়া হয়ে উঠে না যার কারনে অনেকে অনলাইনে শাড়ি কিনেন। কিন্তু অনলাইনে শাড়ি কেনার সময় নানান ভাবনা মাথার মধ্যে আসে- কিনব নাকি থাক? কিনেই ফেলি বরং! দেখা যাক না, একবার কিনে পরের বার না হয় দোকানে গিয়েই… এই রকম নানা ভাবনা ভেবে থাকে সবাই। বিশেষ করে যারা দোকানে গিয়ে থেবড়ে বসে শাড়ি পছন্দ করে কিনতে অভ্যস্ত, তাঁরা তো শুধু আকছারই এসব ভেবে থাকেন। তবে কী জানেন তো, যস্মিন দেশে যদাচার! এখন হচ্ছে অনলাইনে কেনাকাটার যুগ। মানুষের হাতে সময় কম। তাই সবাই ঘরে শুয়ে বসে অনলাইনে শাড়ী কিনে থাকে।


বাংলাদেশে এখন প্রতি বছর ১০০০ কোটি টাকার পন্য অনলাইনে বিক্রি হয়। আর প্রতিদিন অনলাইনে ডেলিভারি দেয়া হয় প্রায় ২০,০০০ অর্ডার। দেশে ওয়েবভিত্তিক অনলাইন শপ আছে প্রায় ১,০০০। ফেসবুক ভিত্তিক আছে প্রায় ১০,০০০ এরও বেশি।

বর্তমানে কারোর এই দোকানে গিয়ে এক ঘণ্টা ধরে শাড়ি বাছার ফুরসত নেই। তা ছাড়া অনলাইন শাড়ির রেঞ্জ বলুন, ডিসকাউন্ট বলুন, সবই অনেকটাই বেশি। কিন্তু কোন সাইট থেকে শাড়ি কিনবেন আর কেনার আগে কী-কী কথা মাথায় রাখবেন, সেটাও জানা জরুরি।

 


অনলাইনে শাড়ি কেনার ক্ষেত্রে কিছু জিনিস মাথায় রাখা জরুরি। তো চলুন সেগুলি জেনে নেই- 

 

 

  • যে শাড়ির ছবি দেখে আপনি পছন্দ করছেন, সেটা কিনার আগে অবশ্যই দেখে নিবেন ছবির নীচের লেখাটি। অনেক সময় ছবির নীচে ছোট করে লেখা থাকে যে ছবিটি শুধু বোঝাবার জন্য ব্যবহার করা হয়েছে অথবা মডেল যে শাড়িটি পরেছেন সেই শাড়ির রঙ এর চেয়ে আলাদাও হতে পারে। সে সব ক্ষেত্রে ওই শাড়িটি না কেনাই ভাল মনে করি। 

 

 

  • আপনি যে সাইট থেকে শাড়ি কিনবেন সেখানে যেন COD বা ক্যাশ অন ডেলিভারির অপশন অবশ্যই থাকে। কেননা, আপনি যদি আগে থেকে অনলাইনে পেমেন্ট করে দেন এবং পরে যদি আপনার শাড়ি পছন্দ না হয় এবং সে শাড়িটি যদি ফেরত দিতে চান, তা হলে মুশকিলে পরতে পারেন। অথবা শাড়ীটি যদি আপনাকে না দেয়া হয় তবে আপনার টাকা টাই বিথা যাবে। কিন্তু আপনি প্রণয়িনী তে পাবেন COD বা ক্যাশ অন ডেলিভারির অপশন
  • আপনি যে সাইট থেকে শাড়িটি কিনছেন, সে সাইট এ গ্রাহক পরিষেবা, বিভিন্ন জায়গায় তার রেটিং কেমন এবং অন্যান্য সার্ভিস কেমন সেটা একবার অবশ্যই দেখে নিবেন। তারা কোন কুরিয়ার এর মাধ্যমে শাড়িটি আপনাকে ডেলিভারি দিচ্ছে, সে সম্পর্কেও আপনার অবশ্যই খোঁজখবর নেয়া দরকার। অনেক কুরিয়ার সংস্থা আছে ট্র্যাকিং এর ব্যবস্থা নেই, সেটাও কিন্তু একটা সমস্যা হয়ে দাঁড়াতে পারে আপনার জন্য। তাই কিনার আগে অবশ্যই যাচাই করে কিনবেন। এ দিক থেকে প্রণয়িনী খুবেই কেয়ারিং।

     
  • আপনি যে সাইট থেকে শাড়ি কিনছেন (Online Saree Shopping) অবশ্যই দেখে নিবেন, যে সেই সংস্থার রিটার্ন পলিসি ঠিক কীরকম। অনেক কোম্পানিই প্যাকেট ছেঁড়া হলে শাড়ি ফেরত নিতে চায় না। এ ছাড়াও এদের আরও অনেক ধরনের শর্ত থাকে। সেগুলো অবশ্যই একটু দেখে নিবেন। অনেকে প্রোডাক্ট ফেরত নিয়ে নেয়, কিন্তু টাকা ফেরত দেয় নিজেদের সাইটের ক্রেডিটে! মানে, আপনি ধরুন ১,০০০ টাকা দিয়ে একটা লিনেন শাড়ী কিনেছিলেন, সেটা পছন্দ না হওয়া্র কারনে ফেরত দিতে চাইছেন। এবার সেই সাইট ফেরত নিবে ঠিক, কিন্তু ওই টাকাটা জমা থাকবে আপনার সাইট প্রোফাইলে। তার মানে হল, আপনি সরাসরি টাকাটা ফেরত পেলেন না। কিন্তু আপনাকে ঐ টাকা দিয়ে ওই সাইট থেকে আবার অন্য কোন জিনিস কিনতে হবে। প্রণয়িনী থেকে কিনলে আপনাকে টাকা ফেরত দেয়া হবে, কিন্তু ডেলিভারি চার্জ টা আপনাকে বহন করতে হবে।

    অনলাইন জগতে শাড়ি কিনার অনেক সাইট পাবেন। কিন্তু সব সাইট থেকে শাড়ি কিনা ঠিক হবে না, এতে ঠকার আশঙ্কা বেশি থাকতে পারে। তাই প্রণয়িনী থেকে শাড়ী কিনবেন, সেখান থেকে কিনলে আশা করা যায় ঠকবেন না। সাইট গুলির নাম হচ্ছে-


    প্রণয়িনীর গ্রাহক পরিষেবা থেকে শুরু করে ঠিক সময়ে ডেলিভারি দেওয়া এ ছাড়াও আরো অনেক কাজ আছে, যা অনেক দিন ধরে দশে দশ পাচ্ছেন এ সাইট টি। শিফন ও সিল্কের শাড়ি এখানে সবচেয়ে বেশি ভাল এবং চাহিদাও খুব। কারন এখানে পাবেন রাজশাহীর অরিজিনাল সিল্কের শাড়ী। বেশ ভাল চাহিদা আছে হাফ অ্যান্ড হাফ শাড়িরও এবং বেশ ভালো। শাড়ির দামের রেঞ্জ মোটামুটি ১০০০-৫০০০ এর মধ্যে থেকে শুরু হয়েছে এখানে। তবে কিনার আগে অবশ্যই দেখে নিবেন  Sold By বলে কার নাম দেওয়া আছে। কেননা যদি থার্ড পার্টি সেলার হয়, তবে সেই ক্ষেত্রে সেলারের সম্পর্কে একটু খোঁজখবর নিয়ে তবেই শাড়ী কিনা ভালো। নয়তো ঠকার সম্ভাবনা বেশি।


    মাত্র কয়েকদিন হল প্রণয়িনীর(Pronoyeni) এর  যাত্রা শুরু করেছে। তবে এর মধ্যেই খুব অল্প সময়ে অনেকের পছন্দের তালিকায় উঠে এসেছে এই নাম। বেনারসি শাড়ি যাঁরা পছন্দ করেন, তাঁদের জন্য পরামর্শ দিব আদর্শ এই সাইট এর। সো এই সাইট থেকে খুব সুন্দর সুন্দর শাড়ি কিনতে পারবেন। শাড়ী গুলি খুবেই ভালো।


    এদের শাড়ির রেঞ্জ খুবেই এক্সক্লুসিভ। বিশেষ করে এমব্রয়ডারি করা ডিজাইনার শাড়ি গুলো বেশ বাজেটের মধ্যে পেয়ে যাবেন প্রণয়িনীর(Pronoyeni) থেকে। সো এই সাইট থেকে কিনতে পারেন কোন রকম দ্বিধা ছাড়াই।

    অন্যান্য সাইটের চেয়ে এই সাইটে শাড়ির দাম কম বাজেটেই পেয়ে যাবেন। তবে শাড়ির কোয়ালিটি নিয়ে কোনও কথা হবে না, কেননা শাড়ী গুলি খুবেই ভালো। এখানে সব রকমের শাড়ি পাওয়া গেলেও খাঁটি রাজশাহীর অরিজিনাল সিল্কের শাড়ির চাহিদা বেশ বেশি ভাল। সেই সাথে ঢাকাই জামদানি শাড়িরও চাহিদা আছে বেশ। সো এই সাইট থেকে আপনারা শাড়ী কিনতে পারেন।

এই সাইটে (Online Saree) শাড়ির দাম একটু কমেই অন্যান্য সাইটের তুলনায়। সুতরাং, আপনার বাজেট যদি কম হয়, তবে এই সাইটে আসাই সব থেকে ভালো। এবং আপনার বাজেটের মধেই শাড়ী পেয়ে যাবেন।


এই সাইটে কোন কিছুর দামাদামি করা লাগবে না। যারা ভাল শাড়ি কিনতে গিয়ে দাম নিয়ে কোনও রকম দরাদরি করেন না তাঁদের জন্য প্রণয়িনী  সব থেকে ভালো।  আর যারা হ্যান্ড প্রিন্টের শাড়ি পছন্দ করেন বা একদম খাঁটি হ্যান্ডলুমের শাড়ি পছন্দ করেন তারাও এই সাইট থেকে শাড়ী কিনতে পছন্দ করবেন। এ সাইটে খুব সুন্দর সুন্দর কালেকশনের ইন্ডিয়ান কাতান শাড়ী পাবেন।


আশা করা যায় প্রণয়িনী সাইট থেকে শাড়ী কিনলে ঠকার কোন সম্ভাবনা নেই।সব শেষে একটা কথাই বলব, শাড়ী কিনার আগে যে সাইট থেকে কিনছেন সে সাইট টি অবশ্যই যাচাই করে কিনবেন। নয়তো ঠকার সম্ভাবনা বেশি থাকবে।



Do You Want To Target Boost Your Facebook Page Posts? Then contact Shopno Career It now Or if you want to message them on Facebook Messenger, click here.